অনলাইনে বাণিজ্য মেলা আয়োজনের প্রস্তুতি

Spread the love

আগামী নভেম্বর-ডিসেম্বরে দ্বিতীয় ধাপে করোনা আবার বড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই এবারের মেলা ২৬ মার্চ শুরুর প্রস্তাব এসেছে। সবকিছু বিবেচনা করে আগামী আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ভার্চুয়াল বা অনলাইনে এবং শারীরিক ‍উপস্থিতি উভয় পদ্ধতিতে আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর ১৪০তম বোর্ড সভায় আগামী বাণিজ্য মেলা নিয়ে আলোচনা হয়। আলোচনায় এসব বিষয় উঠে আসে। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

ভার্চুয়ালি মেলা হলে সেটা কী ফরম্যাটে হবে, এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সভায় উপস্থিত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী প্রদর্শনী কেন্দ্রে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে স্টল বা প্যাভিলিয়ন স্থাপন করা হবে। সেসব স্টল বা প্যাভিলিয়ন অনলাইনে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে। এর ফলে দর্শনার্থী বা ক্রেতা মেলা প্রাঙ্গণে না গিয়েও অনলাইনে সব পণ্য দেখতে পারবে। পছন্দ অনুযায়ী পণ্য ক্রয়ও করতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের ক্রেতারাও পণ্যের কেনার জন্য অর্ডার করতে পারবেন। বর্তমানে বিশ্বে প্রায় অধিকাংশ দেশেই এভাবে মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে ভার্চুয়াল ও শারীরিক উপস্থিতিতি উভয় পদ্ধতিতেই আগামী বাণিজ্য মেলা আয়োজনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে এবারের মেলার আয়োজন করা হবে।

আমাদেরকণ্ঠ/এসআই

Related posts