ঢাকায় মেসে নিয়ে কিশোরীকে গণধর্ষণ!

Spread the love

ঢাকা: ঢাকায় মেসে নিয়ে এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। কয়েকজন মিলে মেসে ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেছেন মর্মে ভুক্তভোগী কিশোরী নিজেই পল্লবী থাকায় একটি অভিযোগ করেছেন।

ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া মেয়েটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে। গত শনিবার রাতে ওই কিশোরী দলবেঁধে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে পল্লবী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়। আটক চারজনের নামপরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোরী গত শনিবার নোয়াখালী থেকে ঢাকায় আসে। এরপর বাবার পল্লবীর বাসায় ওঠেন। পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাবা-মেয়ের মধ্যে মনোমালিন্য দেখা দিলে মেয়েটি বাসা থেকে রাগ করে বেরিয়ে যায়। পরে তার স্বজনেরা সম্ভাব্য অনেক স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার খোঁজ পায়নি। বাসা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর কয়েকজন ফুঁসলিয়ে মেয়েটিকে কালশীর একটি মেসে নিয়ে যায়। পরে ৬ থেকে ৭ জন তাকে ধর্ষণ করে বলে মেয়েটি পুলিশের কাছে অভিযোগ করে। খবর পেয়ে তার পরিবারের লোকজন হাসপাতালে ছুটে যায়।

পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ মিয়া অভিযোগ করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওই কিশোরী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। এরপরই আমরা তৎক্ষণাৎ সেখানে অভিযান পরিচালনা করে চারজনকে আটক করেছি। কিশোরীটি ধর্ষণের শিকার হয়েছেন মর্মে অভিযোগ করলে তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আমাদেরকণ্ঠ/এসআই

Related posts