Amader Kantho- Bangla Online News Portal and Bangladeshi online news source for Game, Binodon, politics, national, international, lifestyle, sports, and many more factors.

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ মে, ২০২২

Facebook Facebook Facebook Facebook

রোদ পোহালে কমবে করোনা ঝুঁকি

লাইফস্টাইল ডেস্ক:
প্রকাশিত: শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২২, ০৯:৩৪
করোনা ঝুঁকি

প্রতিদিনই কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ডেল্টা-ওমিক্রন সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে প্রয়োজন সচেতনতা। এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এমন খাদ্যাভাস ও জীবনযাপনের নিজেকে অভ্যস্ত করে তোলা। করোনা থেকে রক্ষা পেতে প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময় রোদ পোহাতে পারেন।

দেহের মোট চাহিদার ৮০ শতাংশ ভিটামিন ডি সূর্যালোক থেকে পাওয়া সম্ভব। বাদবাকীটা খাবার থেকে পাওয়া যেতে পারে। তাই ভিটামিন ডি পেতে সূর্যালোকের ওপরই নির্ভরশীল হতে হবে।

চিকিৎসাবিজ্ঞানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, করোনাকালে ভিটামিন সি এর মতো ভিটামিন ডি-ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। যারা নিয়মিত রোদ পোহান বা সূর্যের আলোর নীচে থাকেন, তাদের শরীরে ইমিউনিটি তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি থাকে। করোনা সংক্রমণের এই সময়টাতে সুযোগ পেলে খানিকক্ষণ রোদ পোহাতে পারেন। জেনে নিন শরীরে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি হলে কী কী হতে পারে।

ফুসফুস বা শ্বাসনালীতে ভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে সাহায্য করে ভিটামিন ডি। এর অভাব থাকলে ফুসফুসে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে ভাইরাস। ওবেসিটি বেড়ে যেতে পারে। ওজন বাড়লে স্বাভাবিকভাবেই তা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হতে পারেন। কোভিড এবং নিউমোনিয়া একসঙ্গে হলে ভীষণ বিপজ্জনক।

কোভিড আক্রান্ত রোগীর দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা যখন অতিরিক্ত প্রতিক্রিয়া দেখাতে শুরু করে, তখন তাকে বলে সাইটোকাইন স্টর্ম। ভিটামিন ডি এর অভাবে এটি বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কারণ, ভিটামিন ডি এর অভাব থাকলে যেকোনো ধরনের রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায়।

তাই প্রতিদিন নিয়ম করে প্রায় ৩০ মিনিট রোদ পোহানো প্রয়োজন। এ সময় শরীরের কমপক্ষে ১৮ শতাংশে রোদ লাগতে দিতে হবে। সকাল ১০টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত রোদ পোহালে উপকার বেশি পাবেন। আর এপ্রিল-সেপ্টেম্বর মাসগুলোতে রোদ থেকে ভিটামিন ডি পাওয়ার সবচেয়ে ভালো সময়।

যদি রোদ পোহানোর সুযোগ না থাকে তাহলে  ভিটামিন ডি সাপ্লিমেন্ট বা ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার প্রতিদিন খাওয়ার চেষ্টা করুন। পোনা, মাগুর, স্যালমন মাছ, দুধ-ডিম, মাশরুমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ডি থাকে। আর ভিটামিন ডি সাপ্লিমেন্ট নেওয়ার আগে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন।

বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জিয়াউল হক
চেয়ারম্যান: মিসেস নাজমা হক
ঠিকানা: শাঁহ আলী টাওয়ার (৩য় তলা)
৩৩, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ ।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।
©২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । আমাদেরকণ্ঠ২৪ ডট কম, জিয়া গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠান ।
কপিরাইট রেজিস্ট্রেশন নাম্বার CRW-24516